Thursday, July 18, 2019

মার্কিন জায়ান্ট বাংলাদেশে আমাজন এর কার্যক্রম চালু করতে চান

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে নতুন একটা চমকের কথা জানতে পারলাম তাই আপনাদেরও জানাচ্ছি। মার্কিন ইকমার্স জায়ান্ট আমাজন তাদের কার্যক্রম বাংলাদেশে চালু করার আগ্রহ জানিয়েছে। এ নিয়ে আজ আমাদের দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দপ্তরের সাথে বৈঠকে বসেছিল আমাজন কতৃপক্ষ। আপনারা নিশ্চই জানেন যে আমাজন আমাদের দেশে চালু হলে কি সুবিধাটাই না হবে। আমরা যেহেতু নেট জগতে বেশি আগ্রহ প্রকাশ করি তাই আমাদের জন্য এটি অত্যন্ত সুখবর, তাদের এড বাংলাদেশে তখন আরো বেশি ব্যবহার করা যাবে এবং এফিলিয়েট থেকে টাকা তোলাও সহজ হবে।
আমাজনের প্রায় সকল সুবিধাই হয়তো চালু হবে আমাদের দেশে এতে করে আমরা সারা বিশ্বের সকল পণ্য যেমন সহজেই কিনতে পারব তেমনি আমাদের দেশি পণ্যও তারা বিদেশে বিক্রয় করবে। এর আগে ১৮ সালের শুরুতে ওরা বৈঠক করেছিল কিন্তু সেটা ততোটা জোরালো ছিল না। কিন্তু এবার হয়তো হয়েই যাবে বাংলাদেশও এ ব্যাপারে যথেষ্ঠ আগ্রহ দেখাচ্ছে। এখন বাংলাদেশে দারাজ চলছে এটার সার্ভিস টাও ভালো কিন্তু আমাজন হচ্ছে ওর্য়াল্ড ওয়াইড সার্ভিস, তাই এটা চালু হলে আইসিটি খাতে আমরা আরেক ধাপ এগিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ। গত বছর দক্ষিণ এশিয়ার ই-কমার্স কোম্পানি দারাজ গ্রুপকে কিনে বাংলাদেশে ভালোভাবেই ব্যবসা করছে চীনা ই-কমার্স কোম্পানি আলিবাবা। মার্কিন প্রতিষ্ঠান আমাজন ই-কমার্স, ক্লাউড কম্পিউটিং, ডিজিটাল স্ট্রিমিং ও আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সের মতো বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করে। বিশ্বের বৃহত্তম চার কোম্পানি হিসেবে গুগল, অ্যাপল, ফেসবুকের সঙ্গেই আমাজনের নাম আসে। ১৯৯৪ সালের ৫ জুলাই বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ধনি ব্যাক্তি জেফ বেজোস আমাজন প্রতিষ্ঠা করেন। আল্লাহর রহমতে ভালোভাবে চালু হলে অনেক অগ্রগতি হবে বাংলাদেশের। এর সাথে যদি পেপাল টাও চালু হতো তাহলে কেমন হতো!

0 komentar:

Post a Comment